স্বয়ংক্রিয় আপডেট দিয়ে বিপত্তিতে মাইক্রোসফট
স্বয়ংক্রিয় আপডেট দিয়ে বিপত্তিতে মাইক্রোসফট
২০১৬-০৭-০১ ১৯:২৬:৫৭
প্রিন্টঅ-অ+


উইন্ডোজ ১০ স্বয়ংক্রিয় আপডেট দিতে গিয়ে এক গ্রাহকের কম্পিউটার সিস্টেম নষ্ট হয়ে গেছে। দরকারি তথ্য উদ্ধার করতে না পেরে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন সেই গ্রাহক। মাইক্রোসফটের বিরুদ্ধে মামলাও ঠুকে দিয়েছেন। কিন্তু মামলায় হেরে এখন অর্থের বিনিময়ে তা নিষ্পত্তি করতে চাইছে প্রতিষ্ঠানটি। খবর বিবিসি।

টেরি গোল্ডস্টেইন নামের ওই ভুক্তভোগী গ্রাহক ক্যালিফোর্নিয়ায় ট্রাভেল এজেন্সি পরিচালনা করেন। তিনি জানান, কোনো ধরনের অনুমতি ছাড়াই তার উইন্ডোজ ৭ চালিত কম্পিউটারে উইন্ডোজ ১০ ইনস্টল হয়। ব্যক্তিগত কম্পিউটারটি এর পর থেকে ঠিকমতো কাজ করছিল না। কম্পিউটারে থাকা তথ্য বিভ্রাটের কারণে ১০ হাজার ডলার ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়।

মাইক্রোসফটের সর্বশেষ অপারেটিং সিস্টেম (ওএস) উইন্ডোজ ১০। সফটওয়্যারটি পার্সোনাল কম্পিউটারের পাশাপাশি ট্যাবলেট ও স্মার্টফোনের মতো মোবাইল ডিভাইস এবং গেম কনসোলে ব্যবহার উপযোগী করে উন্নয়ন করা হয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই ওএসটি ঘিরে মার্কিন প্রভাবশালী সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটির প্রত্যাশা একটু বেশি। গ্রাহক বাড়াতে উন্মোচনের পর পরই বিনামূল্যে আপগ্রেড সুবিধা চালু করা হয়েছিল। এখন অবধি উইন্ডোজ ৭ ও ৮ চালিত কম্পিউটারের জন্য বিনামূল্যে ডাউনলোড সুবিধা চালু রয়েছে। যদিও উইন্ডোজ ওএসের আগের সংস্করণগুলোর ক্ষেত্রে বিনামূল্যে আপগ্রেড সুবিধা ছিল না। বিপত্তি ঘটেছে বিনামূল্যে সফটওয়্যার আপডেট সুবিধা দিতে গিয়ে।

গোল্ডস্টেইন জানান, ব্যক্তিগত কম্পিউটার উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেমে আপগ্রেড করতে চাই কিনা, তা কেউ জিজ্ঞেস করেনি। মাইক্রোসফট মামলায় হেরে গিয়ে এখন আপিল না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেই সঙ্গে আরো আইনি খরচ এড়ানোর জন্য ক্ষতিপূরণ হিসেবে ১০ হাজার মার্কিন ডলার পরিশোধ করে মামলা নিষ্পত্তি করতে চাইছে।

অবশ্য মাইক্রোসফট তাদের অপরাধ অস্বীকার করছে। একজন মুখপাত্র জানান, এ মামলার পেছনে আরো খরচ এড়ানোর জন্য আপিল স্থগিত করা হয়েছে। মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ১০ উন্মোচনের পর থেকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নতুন গ্রাহকদের এটি গুছিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে। বিষয়টিকে নেতিবাচক হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। স্বয়ংক্রিয় আপডেট ঘিরে এর আগেও বিপত্তিতে পড়েছিল প্রতিষ্ঠানটি। কয়েক মাস আগে কয়েকজন গ্রাহক অভিযোগ করেন, আপগ্রেড বিষয়ে অনুমতি দেয়ার আগেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে উইন্ডোজ ১০ ডাউনলোড করে ইনস্টল করা হয়েছে।
বলা হচ্ছে, উইন্ডোজ ১০ আপডেট বিষয়ে গ্রাহকস্বার্থ মোটেই বিবেচনায় নেয়নি মাইক্রোসফট।

২০১৬ সালের শুরু থেকেই স্বয়ংক্রিয় আপগ্রেড বিতর্কে সমালোচিত হয়ে আসছে মাইক্রোসফট। উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেমের গ্রাহক বা রাজস্ব বৃদ্ধি যে কারণেই হোক, গ্রাহকদের একটি অংশ মনে করছেন, উইন্ডোজ ওএসের সর্বশেষ সংস্করণ তাদের ওপর জোর করে চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে। যদিও মাইক্রোসফটের দাবি, উইন্ডোজ ব্যবহারকারীদের হালনাগাদ রাখতেই এ উদ্যোগ।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর