সাইবার নিরাপত্তা ব্যবসা বেচে দিচ্ছে ইন্টেল
সাইবার নিরাপত্তা ব্যবসা বেচে দিচ্ছে ইন্টেল
২০১৬-০৬-২৮ ১৯:২৮:৩৮
প্রিন্টঅ-অ+


সাইবার নিরাপত্তা বিভাগ ‘ইন্টেল সিকিউরিটি’ বিক্রির পরিকল্পনা করছে ইন্টেল। তবে এখনো উপযুক্ত ক্রেতা মেলেনি। ২০১০ সালে ৭৭০ কোটি ডলারে ম্যাকাফি অধিগ্রহণের পর ইন্টেল সিকিউরিটি নামকরণ করে ইন্টেল। খবর ফিন্যান্সিয়াল টাইমস।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সিলিকন ভ্যালির চিপ নির্মাতা এর সাইবার সিকিউরিটি ইউনিট-সংক্রান্ত চুক্তির ভবিষ্যত্ নিয়ে কথা বলছে ব্যাংকারদের সঙ্গে। ইন্টেল এ কার্যক্রমে সফল হলে এটি হবে প্রযুক্তি খাতের অন্যতম বড় চুক্তি। তবে বিষয়টি নিয়ে তাত্ক্ষণিকভাবে ইন্টেলের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। সাইবার হামলা থেকে ব্যবসা সুরক্ষিত রাখতে করপোরেট কাস্টমাররা উদগ্রীব। এ পরিস্থিতিতে প্রাইভেট ইকুইটি ক্রেতাদের কাছে সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি আগ্রহ বাড়ছে।

‘ইন্টেল সিকিউরিটি’ ৭৭০ কোটি ডলার বা তার চেয়েও বেশি দামে বিক্রি করতে পারে ইন্টেল। এর পরিপ্রেক্ষিতে কয়েকটি প্রাইভেট ইকুইটি ফার্মের একজোট হয়ে ইন্টেল সিকিউরিটি কেনার সম্ভাবনা রয়েছে। চলতি মাসের শুরুতে বেইন ক্যাপিটাল সিম্যানটেকের কাছে বিক্রি করেছে ব্লু কোট সিকিউরিটিকে। এ অধিগ্রহণে মার্কিন প্রযুক্তি কোম্পানিটি বিনিয়োগ করছে ৪৬৫ কোটি ডলার। এছাড়া ভিস্তা ইকুইটি পার্টনার্সও কিনেছে পিং আইডেন্টিটিকে। চলতি মাসেই প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারবাজারে অভিষেক হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি।

পুরনো পদ্ধতিগুলো সাইবার হামলা প্রতিরোধে ব্যর্থ হচ্ছে। ফলে ২০১৪ ও ২০১৫ সালে সাইবার নিরাপত্তা শিল্পে ভেঞ্চার ক্যাপিটালের বিনিয়োগ বেড়েছে উল্লেখযোগ্য হারে। তাই এখন প্রাইভেট ইকুইটি ফার্মগুলো ঝুঁকছে সাইবার নিরাপত্তা-বিষয়ক প্রতিষ্ঠান অধিগ্রহণে।

এদিকে পারসোনাল কম্পিউটারের (পিসি) বাজার পড়ে যাওয়ায় প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে ইন্টেলকে। ঘুরে দাঁড়াতে মার্কিন চিপ নির্মাতা ব্যবসা পুনর্গঠনের পরিকল্পনা করছে। এরই অংশ হিসেবে ব্যয় সংকোচ করতে চায় ইন্টেল। প্রতিষ্ঠানটি সম্প্রতি বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে থাকা ইন্টেলের শাখাগুলো থেকে সব মিলিয়ে ১২ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে। গুরুত্ব দিচ্ছে মাইক্রো চিপ তৈরিতে। তথ্যভাণ্ডার ও ইন্টারনেট-সংযোজিত ডিভাইসে ব্যবহার হয় এটি। তবে ইন্টেলের বিক্রি ও মুনাফায় এখনো পিসির অবদান যথাক্রমে ৬০ ও ৪০ শতাংশ।
চিপে সাইবার নিরাপত্তা সংস্থাপনে ম্যাকাফি অধিগ্রহণ করেছিল ইন্টেল। চিপের গভীরে থাকা হুমকির অস্তিত্ব সম্পর্কেও অবহিত সম্ভব, এমন প্রযুক্তি উদ্ভাবনের পরিকল্পনা ছিল প্রতিষ্ঠানের। এ পরিকল্পনার আওতায় ডিভাইস উত্পাদকরা এখনো এ অপশন সক্রিয় করার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। কিন্তু ছয় বছরও এ নিয়ে কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেনি ইন্টেল।
ম্যাকাফি অধিগ্রহণে সহায়তা করেছিলেন প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ডেভিড ডিওয়াল্ট। ২০০৭ সালে ম্যাকাফির সিইওর দায়িত্ব পালনে আসেন তিনি। এখন তিনি নেতৃত্ব দিচ্ছেন আগামী প্রজন্মে নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ফায়ারআইকে। তার পরিবর্তে ইন্টেল সিকিউরিটির দায়িত্বে থাকা মাইক ডিসিসারে পদত্যাগ করেন ২০১৪ সালে। এখন তিনি ফোরস্কাউট পরিচালনার দায়িত্বে আছেন। ইন্টেল সিকিউরিটি এখন চলছে ক্রিস ইয়াংয়ের অধীনে। সিসকো সিস্টেমের সাবেক সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট তিনি। ইন্টেল ম্যাকাফিকে ইন্টেল সিকিউরিটি নাম দিলেও এর কিছু পণ্য বিক্রি করে ম্যাকাফি ব্র্যান্ডেই।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর