গলছে বরফ, দায়ী নয় বৈশ্বিক উষ্ণতা!
গলছে বরফ, দায়ী নয় বৈশ্বিক উষ্ণতা!
২০১৬-০৬-০১ ০৩:০৬:৫২
প্রিন্টঅ-অ+


এতদিন সকলে মনে করতো গ্লোবাল ওয়ার্মিং বা বৈশ্বিক উষ্ণতার কারণে গলতে শুরু করেছে শতশত বছর ধরে টিকে থাকা মেরু অঞ্চলের বরফ, যার কারণে অদূর ভবিষ্যতে ডুবে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে সমুদ্রতীরবর্তী অঞ্চলগুলো।

কিন্তু সাম্প্রতিক গবেষণায় জানা গেছে, সম্পূর্ণ ভিন্ন তথ্য। বিশেষজ্ঞদের মতে, মেরু অঞ্চলে বরফ গলার রহস্য এবার উন্মোচিত হয়েছে।

ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয় এবং ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির বিজ্ঞানীদের গবেষণায় বলা হয়েছে, গ্রিন হাউজ প্রক্রিয়ার বৈশ্বিক উষ্ণতার কারণে নয়, বরঞ্চ অ্যান্টার্কটিকায় বরফের গভীরে শতশত বছর ধরে জমে থাকা যে শীতল পানি রয়েছে, যা যা বর্তমানে উথলে উঠতে শুরু করেছে, এর কারণেই ভূপৃষ্ঠের ওপরিভাগের পানির উচ্চতা ধীরে ধীরে বাড়ছে।

ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়য়ের অধ্যাপক কাইল আর্মর বলেন, বরফ গলার জন্য বৈশ্বিক উষ্ণতা দায়ী নয়। বরফের নীচে থাকা শতশত বছর ধরে থাকা পানি এখন উথলে উঠতে শুরু করেছে। তবে এটা শুধু দক্ষিণ মেরুর সাগর অর্থাৎ অ্যান্টার্কটিকায় ঘটতে দেখা গেছে। অন্য কোনো মহাসাগরে ঘটেনি। যেমন আমেরিকা এবং নিরক্ষরেখা পশ্চিম উপকূলে কয়েকশ মিটার গভীরতা থেকে সমুদ্রের জল পরিক্ষা করে এই প্রভাব পাওয়া যায়নি।

নেচার জিওসায়েন্স প্রকাশিত প্রবন্ধে অধ্যাপক আর্মর আরো বলেন, বিশেষজ্ঞদের গবেষণায় ওই অঞ্চলের তাপমাত্রায় কোনো পার্থক্য পাওয়া যায়নি, যার কারণে বরফ গলতে শুরু করবে। দক্ষিণ মহাসাগরের সব স্থানেই যে এমনটি হচ্ছে তা নয়, এই শীতল পানির উদগীরণ ঘটছে মাইল দুয়েক অঞ্চল জুড়ে।

ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞ দল জানায়, পানির উদগীরণের কারণেই এটা একমাত্র সম্ভব। কারণ, ১৯৫০ সালের পর থেকে বিশ্বের তাপমাত্রা প্রতি দশকে বেড়েছে ০.০২ ডিগ্রি বা ০.০৩৬ ফারেনহাইট। সুতরাং ১৯৫০ সালের পর থেকে ধরলে পৃথিবীর গড় তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে ০.০৮ ডিগ্রি বা ০.১৪৪ ফারেনহাইট যা দক্ষিণ মেরুর বরফ গলানোর ক্ষেত্রে সহায়ক নয়।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

পরিবেশ এর অারো খবর