খেলা হবে হ্যাকিংয়ে
খেলা হবে হ্যাকিংয়ে
২০১৬-০৫-০২ ০২:৩২:৩০
প্রিন্টঅ-অ+


কম্পিউটার হ্যাকাররা ব্যক্তিগত তথ্যে অনুপ্রবেশ করার জন্য সবসময়েই নিরাপত্তার দূর্বলতা কাজে লাগিয়ে আসছে। এই বিষয়টি এবার অপরাধের বদলে ‘খেলা’ হিসাবে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল যুক্তরাজ্যের একটি বার্ষিক প্রতিযোগিতায়, জানিয়েছে বিবিসি।

কেমব্রিজ কম্পিউটার ল্যাবোরেটরি-এর রিডার ড. ফ্রাঙ্ক স্ট্যাজানো সাইবার নিরাপত্তাকে সামুরাইভিত্তিক মার্শাল আর্টের সঙ্গে তুলনা করে বলেন, “আপনি দাবি করতে পারবেন না যে আপনি কেবল আত্মরক্ষার কাজটি করতে পারেন কারণ আপনি যদি আক্রমণ করতে না জানেন, তাহলে আপনি আত্মরক্ষাও করতে পারবেন না।”

ড. স্ট্যাজানো ইন্টার-এইস সাইবারচ্যালেঞ্জ-এরও আয়োজক। এটি এ বছর অনুষ্ঠিত হওয়া একটি হ্যাকিং টুর্নামেন্ট, যেখানে যুক্তরাজ্যের সাইবার সিকিউরিটি রিসার্চ-এর ১৩টি অ্যাকাডেমিক সেন্টার অফ এক্সিলেন্স-এর ১০টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে।

ড. স্ট্যাজানো বিবিসিকে বলেন, “এটি হ্যাকিং প্রতিযোগিতার একটি ‘খেলায় রূপান্তরিত’ সংস্করণ, যেখানে খেলোয়াড়দের অপরাধীরা যেভাবে কম্পিউটারের ওপর আক্রমণ চালায়, সেভাবে একই ধরনের আক্রমণ চালাতে হবে।” জিততে হলে প্রতিযোগী দলগুলোর হ্যাকারদের মতো দক্ষতা দেখাতে হবে।

ফেইসবুক প্রকৌশলীদের তৈরি তথাকথিত ‘ক্যাপচার দ্য ফ্ল্যাগ’ চ্যালেঞ্জটিতে শিক্ষার্থীদের হ্যাকিং দক্ষতা ব্যবহার করে কোডের গোপন লাইন বা ‘ফ্ল্যাগ’ খুঁজে বের করতে হয়। আরও প্রতিযোগিতাপূর্ণ একটি চ্যালেঞ্জে দলগুলো একটি সার্ভারের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার জন্য পরস্পরের মধ্যে যুদ্ধ করে।

ব্ল্যাক-হ্যাট হ্যাকারদের মতো হ্যাকিং দক্ষতা অনুশীলন করার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা কার্যকরী সাইবার-রক্ষাকর্তা হয়ে উঠবে বলে ড. স্ট্যাজানো আশা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, “যদি আপনি এই কলা-কৌশল না শেখান, তাহলে এই ক্ষেত্রে পারদর্শী হয়ে থাকবে শুধু তারাই, যারা ইতোমধ্যেই অশুভ’র কাছে মাথা নত করেছে।”

প্রতিযোগিতাটি প্রতি বছর অনুষ্ঠিত হবে। এ বছর অনুষ্ঠিত হওয়া প্রথম প্রতিযোগিতাটিতে বিজয়ী হয়েছে স্বাগতিক কেমব্রিজ। ইম্পেরিয়াল এবং সাউদাম্পটন যথাক্রমে রূপা ও ব্রোঞ্জ জিতেছে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর