রোবট নিয়ে এমআইএসটিতে লড়াই
রোবট নিয়ে এমআইএসটিতে লড়াই
২০১৬-০৫-০২ ০২:২৩:১৯
প্রিন্টঅ-অ+


শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক জাফর ইকবাল বলেন, আমাদের মেধাকে কাজে লাগাতে হবে। কৃষক গার্মেন্টের মেয়েরা এগিয়ে যাচ্ছে। বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশের পরিচিতি বাড়ছে। কিন্তু বিজ্ঞানে আমাদের অবস্থানের পরিবর্তন হয়নি। প্রযুক্তিতে উদ্ভাবন ছাড়া দেশে সামগ্রিক উন্নতি সম্ভব নয়। মেধার চর্চার মাধ্যমেই বড় ধরনের পরিবর্তন সম্ভব।

শনিবার রাজধানীর মিরপুর সেনানিবাসে মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এ্যান্ড টেকনোলজি’র এমআইএসটি রোবটিক্স ক্লাবের আয়োজনে রোবলুশন ২০১৬ উদ্বোধন করেন তিনি।

২৩৩টি টিম প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। ৭টি ক্যাটাগরিতে নিজের তৈরি রোবটের সক্ষমতার লড়াইয়ে মেতে উঠে তরুণ-তরুণীরা। রোবট নিয়ে এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয় ৩৫টি কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

জাফর ইকবাল ছাড়াও দিনব্যাপী এ প্রতিযোগিতা উদ্বোধন করেন আইসিটি সচিব শ্যাম সুন্দর শিকদার। এসময় মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এ্যান্ড টেকনোলজির কা্উন্সিলর গোচ্ছাম ই হায়দার, চিফ প্যাট্রোন সোহাইল হোসেন খান উপস্থিত ছিলেন।

আইসিটি সচিব শ্যাম সুন্দর শিকদার বলেন,আমাদের দেশীয় প্রযুক্তিকে উৎসাহিত করতে নানা ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রতি মাসে নতুন প্রযুক্তি নিয়ে কোন উদ্ভাবনী প্রকল্পে অর্থায়ন করা হবে। যে কেউ চাইলে নিজেদের প্রজেক্টগুলো আইসিটি বিভাগে ওয়েব সা্‌ইটের মাধ্যমে জমা দিতে পারবেন। ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে সকলকে আরও বেশি প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করতে হবে।

এমআইএসটি রোবটিক্স ক্লাবের প্রেসিডেন্ট সামিন রহমান বলেন, ৭টি ক্যাটাগরির প্রতিযোগিতার মধ্যে লাইন ফলোয়ারে ৯৩টি টিম, প্রজেক্ট শো’তে ৪০ টি টিম, পোস্টার প্রেজেন্টশনে ১১টি টিম,কোয়াড কপ্টার রেসিং এ ১৭ টি, রোবা ফাইটে ৩০টি, রোবট অলিম্পিয়াড ১৭টি টিম, রুবিক্স কি’তে ২৫টি টিম অংশ নিয়েছে। দিনব্যাপী প্রতিযোগিতা শেষে বিজয়ীদের পুরস্কার দেওয়া হয় ।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর