এলো বৈদ্যুতিক স্বয়ংচালিত গাড়ি
এলো বৈদ্যুতিক স্বয়ংচালিত গাড়ি
২০১৬-০৫-০২ ০২:২০:৫২
প্রিন্টঅ-অ+


স্বয়ংচালিত গাড়ি প্রথম উদ্ভাবন করেছে টেক জায়ান্ট গুগল। ইতোমধ্যে এই গাড়ি সারা পৃথিবীতে সাড়া জাগিয়েছে। বিচ্ছিন্ন কিছু দুর্ঘটনা ছাড়া গুগলের এই গাড়িকে সফল বলা যায়। এবার স্বল্প খরচে বৈদ্যুতিক স্বয়ংচালিত গাড়ি উদ্ভাবন করে ভারতের একদল গবেষক।

ভারতের খড়গপুরের আইআইটির রোবটিক্স রিসার্চ গ্রুপের সাবেক শিক্ষার্থীরা স্বয়ংচালিত এই গাড়িটি উদ্ভাবন করেছে। এর নাম ‘অ্যারো শাটল’ এই গাড়িটি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের মধ্যে যাত্রা পরিবহন করছে।

উদ্ভাবনকারীরা এটির উৎপাদন খরচ ৪০ থেকে ৬০ শতাংশ কমিয়ে নিয়ে এনেছে। শুক্রবার আইআইটি এক বিবৃতিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

এই স্বয়ংচালিত গাড়িটি ব্যাটারিতে চলবে। এটি উদ্ভাবনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন নলিন গুপ্ত, জিত রায় চৌধুরী এবং শ্রীনিবাস রেড্ডি এবং ওয়াই-কম্বিনেটর নামের একটি প্রতিষ্ঠান।
গাড়িটির তৈরির জন্য সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করা হয়েছে। যাতে করে গাড়িটি ব্যস্ত সড়কে নিরাপদে চলাচল করতে পারে।

আইআইটি এক বিবৃতিতে জানায়, এই স্বয়ংচালিত গাড়িটি সপ্তাহে সাত দিনই ২৪ ঘণ্টা চলতে পারবে। এর পরিচালন ব্যয়ও কম। এটি চলাচলের জন্য রেলওয়ের মত কোনো ট্রাকের প্রয়োজন নেই। প্রয়োজন নেই আলাদা সড়কেরও।
গাড়িটিতে আছে লেসার, ক্যামেরা, রাডার এবং জিপিএস। এটি পরিবেশের ত্রিমাত্রিক প্রতিচিত্র তৈরি করে চলাচল করে।
এতে যাত্রীরা আরোহন করার পর তাদের গন্তব্য টাচস্ক্রিন ডিসপ্লের মাধ্যমে নির্দেশ করে দেয়। এছাড়াও অ্যাপের মাধ্যমেও গাড়িটিকে নির্দেশনা দেয়া যায়।

স্বয়ংচালিত গাড়িটির অটোনোমাস ফিচারে বেশ কয়েকটি বিষয় অর্ন্তভুক্ত আছে। এতে আছে, প্রতিবন্ধকতা নিরূপক এবং সংঘর্ষ এড়ানোর প্রযুক্তি। এটি সড়কের লেন নির্ণয় এবং বিধি-নিষেধ শনাক্ত করতে পারে। এছাড়াও পথচারীদের শনাক্ত করে তাদের এড়িয়ে চলার ব্যবস্থাও আছে।

গাড়িটিতে জরুরি বেকিং সিস্টেম আছে। আছে স্প্রিড কন্ট্রোল করার ব্যবস্থাও। গাড়িটি ট্রাফিক পর্যবেক্ষণ ও সিগন্যাল শনাক্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও নিতে পারে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর