বাংলাদেশ সরকারকে তথ্য দিয়েছে ফেইসবুক
বাংলাদেশ সরকারকে তথ্য দিয়েছে ফেইসবুক
২০১৬-০৪-৩০ ০৩:২২:৪৯
প্রিন্টঅ-অ+


প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে তথ্য চেয়ে করা অনুরোধে সাড়া দিয়েছে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ।

গতবছরের দ্বিতীয়ার্ধে (জুলাই-ডিসেম্বর) মোট ১২টি অনুরোধের মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ৩১ জন ব্যবহারকারীর তথ্য চাওয়া হয়েছিল।

এর মধ্যে ১৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ তথ্য ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ সরকারকে দিয়েছে বলে তাদের সর্বশেষ ‘গভার্নমেন্ট রিকোয়েস্ট রিপোর্ট’ এ বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার প্রকাশিত এই ষান্মাষিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ধর্মাবমাননার কারণে দেশের আইন ভঙ্গের যুক্তি দেখিয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থার (বিটিআরসি) অনুরোধ পাওয়ার পর জুলাই-ডিসেম্বর সময়ে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ চারটি ‘কনটেন্ট’ দেখার সুযোগ বন্ধ করেছে।

তবে বরাবরের মতোই সংশ্লিষ্ট ব্যবহারকারীর নাম বা কনটেন্ট সম্পর্কে কোনো তথ্য ফেইসবুকের প্রতিবেদনে প্রকাশ করা হয়নি।

এর আগে ২০১৩ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১৫ সালের জুন পর্যন্ত আড়াই বছরে মোট ৩৭ জন ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়েছিল বাংলাদেশ সরকার। সেসব অনুরোধের কোনোটিই ফেইসবুক কর্তৃপক্ষের সাড়া পায়নি।

২০১৫ সালের জানুয়ারি-জুন সময়ে মোট তিনটি অনুরোধের মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে তিনজন ব্যবহারকারীর তথ্য চাওয়া হয়। তবে কারও সম্পর্কে তথ্য দেয়নি ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ।

একইভাবে ২০১৪ সালের জুলাই-ডিসেম্বর সময়ে পাঁচ জনের তথ্য, জানুয়ারি-জুন সময়ে ১৭ জনের তথ্য এবং ২০১৩ সালের জানুয়ারি-জুন সময়ে ১২ জন ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়েছিল সরকার। ফেইসবুক কারও তথ্যই দেয়নি।

২০১৩ সালের জুলাই-ডিসেম্বর সময়ে বাংলাদেশ থেকে তিনটি ‘কনটেন্ট’ দেখার সুযোগ বন্ধ রাখার অনুরোধই কেবল ফেইসবুকের সাড়া পায়।

সে সময় ফেইসবুকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, বাংলাদেশের আইনে ওইসব কনটেন্ট ‘রাষ্ট্রদ্রোহিতামূলক’ বিবেচিত হওয়ায় কর্তৃপক্ষ ওই ব্যবস্থা নেয়।

দুই বিদেশি নাগরিক হত্যা ও পুলিশের তল্লাশি চৌকিতে হামলার ঘটনার পর জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের যোগাযোগের পথ বন্ধ করার কারণ দেখিয়ে গতবছর ১৮ নভেম্বর থেকে ২২ দিন বাংলাদেশে ফেইসবুক দেখার সুযোগ বন্ধ করে রাখে সরকার।
ওই সময় ফেইসবুক কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়ে বাংলাদেশের পরিপ্রেক্ষিতে ফেইসবুকের নানা ‘অপব্যবহার ও নেতিবাচক’ বিষয় তুলে ধরেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

এরপর চলতি বছর জানুয়ারিতে সিঙ্গাপুরে গিয়ে ফেইসবুকের এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের প্রধান কার্যালয়ে বৈঠকও করেন তারা।

ওই সফরের পর দেশে ফিরে প্রতিমন্ত্রী বলেছিলেন, সাইবার নিরাপত্তা, নারীর প্রতি অবমাননাসহ বাংলাদেশের প্রচলিত ধর্মীয় ও সামাজিক মূল্যবোধ সাপেক্ষে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ সরকারের অভিযোগ/অনুরোধ বিবেচনার আশ্বাস দিয়েছে।

সরকারি হিসেবে বাংলাদেশের প্রায় তিন কোটি মানুষ সামাজিক যোগাযোগের এই ওয়েবসাইট ব্যবহার করে থাকেন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর