দু’দিনেও নেভেনি সুন্দরবনের আগুন
দু’দিনেও নেভেনি সুন্দরবনের আগুন
২০১৬-০৪-৩০ ০২:৫৭:৩০
প্রিন্টঅ-অ+


গেল ১৪ বছরে সুন্দরবনে লাগা ২২টি অগ্নিকাণ্ডের মধ্যে এবারের আগুনের ধরন একেবারেই ভিন্ন বলে জানিয়েছে বন বিভাগ।

বন কর্মকর্তারা বলছেন, ‘ইতোপূর্বে বনের একটি বা দুটি এলাকায় আগুন লাগলেও এবার দুর্বৃত্তরা সুপরিকল্পিতভাবে সুন্দরবনের ২৫ নম্বর কম্পার্টমেন্টের অন্তত ২০ থেকে ২৫টি স্থানে আগুন দিয়েছে।’

বুধবার (২৭ এপ্রিল) বিকেলে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর স্টেশনের ২৫ নম্বর কম্পার্টমেন্টের তুলাতলা এলাকায় লাগা আগুন দু’দিনেও নেভাতে পারেনি বন বিভাগ ও ফায়ার সার্ভিস।

জানা গেছে, এখন ওই এলাকার বিভিন্ন স্থানে ধোঁয়ার কুণ্ডুলি দেখা যাচ্ছে। বিক্ষিপ্তভাবে অন্তত ৬টি এলাকায় এখনো ধোঁয়া এবং সামান্য আগুন রয়েছে।

অবশ্য বন বিভাগের দাবি―সুন্দরবনের তুলাতলা এলাকায় লাগা আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে। সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) বেলায়েত হোসেন বলেন, ‘দুর্বৃত্তরা এবার পরিকল্পিতভাবে বনের তুলাতলা এলাকার কয়েক কিলোমিটার জুড়ে বিক্ষিপ্তভাবে আগুন দিয়েছে। বেশ দূরে দূরে এক একটি স্থানে আগুন দেওয়ায় তা সম্পূর্ণ নেভাতে বেগ পেতে হচ্ছে।
কিছু এলাকায় এখনো মাঝে মাঝে সামান্য আগুন এবং ধোঁয়া দেখা যাচ্ছে। আমরা আগুন সম্পূর্ণ নেভাতে কাজ করছি।’

সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের এসিএফ কামাল উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, ‘বনের মধ্যে কিছু দূরে দূরে বিক্ষিপ্তভাবে অগ্নিকাণ্ড পরিকল্পিতভাবে আগুন দেওয়ার ইঙ্গিত। সাধারণভাবে এত দূরে দূরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আগুন লাগবে না। এবারও আগুন লাগানো হয়েছে।’

শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে অগ্নিকাণ্ডের এলাকা পরিদর্শন করেছেন বন বিভাগের খুলনা অঞ্চলের বন সংরক্ষক (সিএফ) জহির উদ্দিন আহম্মেদ।

তিনি বলেন, ‘কয়েক কিলোমিটার জুড়ে বিক্ষিপ্তভাবে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। তাই শনাক্ত করে আগুন পুরোপুরি নেভাতে সময় লাগছে।’

তবে বর্তমানে আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আছে দাবি করে জহির উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, ‘আগুন সম্পূর্ণ নিভে গেলেও ফায়ার সার্ভিসকে সুন্দরবন থেকে সরিয়ে নেওয়া হবে না। বন বিভাগের সাথে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরাও ওই এলাকায় পর্যবেক্ষণে থাকবেন।’

বাগেরহাট ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক মো. মানিকুজ্জামান বলেন, ‘আগুন নেভাতে বাগেরহাট, মোরেলগঞ্জ ও শরণখোলা ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিটের সাথে সকালে খুলনা থেকে আসা ১২ জন কর্মী যোগ দিয়েছেন। তীব্র বাতাস এবং পানির আধার দূরে হওয়ায় আগুন নেভাতে বেগ পেতে হচ্ছে।

যেখানে আগুন লেগেছে তার থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরের আড়ুয়ারবাড় খাল থেকে দমকল কর্মীরা পানি এনে আগুন নেভাতে কাজ করছেন। বিভিন্ন স্থানে এখনো মাঝে মাঝে ধোঁয়া দেখা যাচ্ছে।’

আগুন সম্পূর্ণ নেভাতে আর কত সময় লাগতে পারে তা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি ফায়ার সার্ভিসের ওই কর্মকর্তা।

বুধবারের (২৭ এপ্রিল) অগ্নিকাণ্ড নিয়ে গেল এক মাসে সুন্দরবনে চারবার আগুন লাগলো। এর আগে গত ২৭ মার্চ, ১৩ ও ১৮ এপ্রিল ধানসাগর স্টেশনের নাংলী ক্যাম্প এলাকায় আগুন লাগে। সে সময় বন বিভাগের পক্ষ থেকে তদন্ত করে স্থানীয় দুর্বৃত্তদের দায়ী করা হয়।

ওই ঘটনায় দুটি মামলাও করে বন বিভাগ। তবে এখনো আসামিদের কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর