ব্রেকিং নিউজ বিজয় দিবসে দি ইঞ্জিনিয়ার্স-এর সকল পাঠক-পাঠিকা, গ্রাহক-অনুগ্রাহক, বিজ্ঞাপনদাতা, দেশবাসী এবং মুক্তিযোদ্ধাদের জানাই আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।
রাঙামাটিতে টাকার বিনিময়ে সিম রেজিস্ট্রেশন করানোর অভিযোগ
রাঙামাটিতে টাকার বিনিময়ে সিম রেজিস্ট্রেশন করানোর অভিযোগ
স্টাফ রিপোর্টার
২০১৬-০৪-২৪ ১৮:১২:৪৭
প্রিন্টঅ-অ+


বিনামূল্যে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম থাকলেও নিয়ম অমান্য করে গ্রাহকদের কাছ থেকে নেয়া হচ্ছে টাকা। রাঙামাটি শহরে প্রতিটি সিম রেজিস্ট্রেশনে নেয়া হচ্ছে সর্বনিম্ন ২০ টাকা। এছাড়া উপজেলাগুলোতে নেয়া হচ্ছে ৫০ টাকা বা তার অধিক।
গ্রাহক সেজে শনিবার রাঙামাটি শহরের রিজার্ভ বাজার, তবলছড়ি, বনরুপা ভাসমান সিম রেজিস্ট্রেশন কেন্দ্রগুলোতে সিম রেজিস্ট্রেশন করতে গেলে প্রতি সিমে ২০ টাকা চেয়ে বসেন রেজিস্ট্রেশনকারীরা। এর প্রবণতা বেশি লক্ষ্য করা গেছে রবি সিম রেজিস্ট্রেশন কেন্দ্রগুলোতে। পিছিয়ে নেই অন্যান্য মোবাইল কোম্পানিগুলোও।
টাকা নেয়ার কারণ জানতে চাইলে গ্রাহকদের পরিষ্কার করে বলে দিচ্ছে আমাদের এখানে না করলে অন্য জায়গায় করেন।
রবি সিম রেজিস্ট্রেশন করতে গেলে রিজার্ভ বাজারে সামিও টেলিকমের কর্মরত রেজিস্ট্রেশনকারীরা এই প্রতিবেদককে বলেন, তারা প্রতি সিমে ২০ টাকা করে নিচ্ছেন। বিনামূল্যে তারা সিম রেজিস্ট্রেশন করেন না। করলে তাদের লোকসান হয়।
রবি গ্রাহক সেবা সেন্টারের কর্মকর্তারা বলেন, বাইরে যারা টাকা নিচ্ছে এটি তাদের সাথে সম্পৃক্ত নয়। বি আলম ট্রেডার্স এসব ভাসমান কেন্দ্রগুলো বসিয়েছে। তাই এর দায় তাদেরকে নিতে হবে।
রিজার্ভ বাজারের বি আলম ট্রেডার্সের ম্যানেজার মো. বাদশা আলম বলেন, সিম বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম রেজিস্ট্রেশনের জন্য রাঙামাটি জেলায় ১১৭ টি বিনামূল্যে ডিভাইস সরবরাহ করা হয়েছে। এখানে টাকা নেওয়ার কোন নিয়ম নেই। আমরা বার বার সর্তক করছি। গ্রাহকরা সচেতন না হওয়ায় এটি হচ্ছে। রেজিস্ট্রেশনে যেন টাকা নেয়া না হয় সে জন্য আমাদের নিদের্শনা দেয়া আছে। অভিযোগ পাওয়া গেলে আমরা ব্যবস্থা নেব। সেজন্য গ্রাহকদের সচেতন হবে হবে। টাকা চাইলে অভিযোগ দিতে হবে।
সুমন চাকমা (৪০) নামে এক সিম রেজিস্ট্রশনকারী বলেন, তার সিম কেনার সময় রেজিস্ট্রেশন করেছেন। বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে ৩০ এপ্রিলের মধ্যে সিম রেজিস্ট্রেশন করতে হবে এই বার্তা পেয়ে তিনি রেজিস্ট্রেশন করতে এক ঘণ্টার বেশি সময় ধরে অপেক্ষা করতে হয়েছে। ২০ টাকাও দিতে হয়েছে।
জেলার নানিয়াচর উপজেলার রিপন চাকমা বলেন নানিয়াচরে প্রতি সিমে নেয়া হচ্ছে ৫০ টাকা। বরকলের সুবলং বাজার এলাকায় প্রিয়ো চাকমা বলেন সুবলং বাজারে প্রতি সিমে নেয়া হয় ৫০ টাকা।
বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে ৩০ এপ্রিলের মধ্যে সিম রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। প্রতিদিন ক্ষুদে বার্তা আসছে মোবাইল ফোনে। এই বার্তায় সিম রেজিস্ট্রেশন করতে গ্রাহক সেবা সেন্টারে যাচ্ছে মোবাইল ব্যবহারকারীরা। দিনভর ভিড় লেগেই আছে গ্রাহক সেবা কেন্দ্রগুলোতে। আগে রেজিস্ট্রেশন করার প্রবণতা থাকার সুযোগে টাকা নেয়া হচ্ছে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর

top
ব্রেকিং নিউজ বিজয় দিবসে দি ইঞ্জিনিয়ার্স-এর সকল পাঠক-পাঠিকা, গ্রাহক-অনুগ্রাহক, বিজ্ঞাপনদাতা, দেশবাসী এবং মুক্তিযোদ্ধাদের জানাই আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।
facebook
Advertisement