অ্যামাজন থেকে ট্রাম্পকে সরানোর দাবি
অ্যামাজন থেকে ট্রাম্পকে সরানোর দাবি
২০১৬-০৪-১৪ ০৩:১২:৩৬
প্রিন্টঅ-অ+


অনলাইনে খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান অ্যামাজন-এর পক্ষ থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান মনোনয়ন প্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্প-এর সঙ্গে সবরকম ব্যবসায়িক সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করার দাবিতে পিটিশন দিয়েছে ১৩ হাজারেরও বেশি ক্রেতা।

নারী অধিকার সংক্রান্ত দল আল্ট্রাভায়োলেট অ্যামাজন সিইও জেফ বেজোস-কে উদ্দেশ্য করে এই পিটিশন শুরু করে। এতে অ্যামাজনে ডোনাল্ড ট্রাম্প কালেকশন-এর আটটি পণ্য বিক্রি বন্ধের দাবি জানানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়, “ডোনাল্ড ট্রাম্প-এর সঙ্গে অ্যামাজন ব্যবসায়িক সম্পর্ক এখনও পর্যন্ত ছিন্ন না করায় একজন ক্রেতা হিসেবে আমি খুবই হতাশ। অ্যামাজন বাজারে তার ঘৃণার কোনো জায়গাই থাকা উচিত না।”

সিএনএন জানায়, গত বছর ট্রাম্পের নির্বাচনে দাঁড়ানোর ঘোষণার পর থেকে এ পর্যন্ত বহু প্রতিষ্ঠান এবং মিডিয়া আউটলেট ট্রাম্পের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করেছে। এর মধ্যে ইএসপিএন, এনবিসি, মেইসি’স-এর মতো প্রতিষ্ঠান রয়েছে।
পিটিশনে বলা হয়, “মেইসি’স-এর অনুসরণে অ্যামাজনের পক্ষ থেকে ট্রাম্পের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করা এবং তার ঘৃণ্য এ ব্র্যান্ড থেকে লাভ করা থামানোর সময় হয়ে গেছে। তিনি তার র‌্যালিতে সংঘাত উৎসাহিত করেছেন, তার প্রতিদ্বন্দ্বীর স্ত্রীকে নিয়ে ঠাট্টা করেছেন, এমনকি সম্প্রতি একজন নারী সাংবাদিককে মারাত্মকভাবে আক্রমণের দায়ে আটক তার প্রচারণা ব্যবস্থাপকের নিন্দা করতেও অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।”
এ প্রসংগে অ্যামাজনের মুখপাত্র বা ট্রাম্প প্রচারণা দলের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

ট্রাম্পের পণ্য তুলে নিলেও অন্যান্য বিক্রেতাদের পক্ষ থেকে আসা প্রচারণা পণ্য বিক্রির মাধ্যমে অ্যামাজন যথেষ্ট লাভ করতে পারবে বলে জানায় সিএনএন। এর মধ্যে রয়েছে ট্রাম্পের নির্বাচনী স্লোগান “মেক অ্যামেরিকা গ্রেট আগেইন” সম্বলিত বেইজবল ক্যাপ, ট্রাম্প ববলহেড, মুখোশ, হট সস, টয়লেট পেপার ও কালারিং বুক।

এর আগেও অ্যামাজন বিভিন্ন রাজনৈতিক বিষয়ে নির্দিষ্ট অবস্থান নিয়েছে। গত বছর সাউথ ক্যারোলাইনার ঐতিহ্যবাহী ব্ল্যাক চার্চে গুলিবর্ষণের ঘটনার পর অ্যামাজন কনফেডারেট পতাকা এবং এ সম্পর্কিত স্মৃতিচিহ্নের বিক্রি নিষিদ্ধ ঘোষণা করে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর