বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধন বিষয়ে রায় আজ
বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধন বিষয়ে রায় আজ
২০১৬-০৪-১১ ০৪:২৪:৫৯
প্রিন্টঅ-অ+


নাগরিকদের আঙুলের ছাপ বা বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সেলফোনের সিম নিবন্ধন কার্যক্রমের বৈধতা নিয়ে জারি করা রুলের শুনানি শেষ হয়েছে। রায় ঘোষণার জন্য আজ দিন ধার্য করেছেন বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি একেএম সাহিদুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

গত ৯ মার্চ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী এসএম এনামুল হকের করা রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৪ মার্চ রুল জারি করেন হাইকোর্ট। আঙুলের ছাপের মাধ্যমে সেলফোনের সিম নিবন্ধন কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, রুলে তা জানতে চাওয়া হয়। এক সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বিটিআরসি চেয়ারম্যান, স্বরাষ্ট্র সচিব, আইন সচিব, প্রধান নির্বাচন কমিশনার, জাতীয় পরিচয়পত্র অনুবিভাগের ডিজি, সেলফোন অপারেটরগুলোসহ ১৩ জন বিবাদীকে নির্দেশ দেয়া হয়। চূড়ান্ত শুনানি শেষে এখন রায়ের জন্য অপেক্ষা।

রিট আবেদনের পক্ষে গতকাল শুনানি করেন আইনজীবী এওয়াই মশিউজ্জামান, অনিক আর হক ও ব্যারিস্টার মুক্তাদির রহমান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা।

রিটকারীর আইনজীবী মুক্তাদির রহমান সাংবাদিকদের বলেন, নতুন ও পুরনো সব সিম নিবন্ধন, অ্যাক্টিভেশন ও ভেরিফিকেশনের জন্য আঙুলের ছাপ দিতে হবে বলে গত ১৩ ডিসেম্বর নির্দেশনা দেয় বিটিআরসি। এক্ষেত্রে সেলফোন অপারেটরগুলোই নাগরিকদের আঙুলের ছাপ সংগ্রহের কাজটি করছে। দেশের ছয়টি সেলফোন অপারেটরের মধ্যে পাঁচটির মালিকানাই বিদেশীদের হাতে। দেশের ৯৭ শতাংশ গ্রাহক বা নাগরিকের নিয়ন্ত্রণ তাদের হাতে। বিদেশীদের হাতে আমাদের নাগরিকদের তথ্য সরবরাহ করা হলে ব্যক্তিগত গোপনীয়তা ও নিরাপত্তা লঙ্ঘন হতে পারে। তাই এসব তথ্য কীভাবে নেয়া হচ্ছে, কোথায় সংরক্ষণ করা হচ্ছে, কীভাবেইবা ব্যবহার করা হচ্ছে— এগুলো অনেক গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। আদালত এ বিষয়ে রায় দেবেন।

উল্লেখ্য, গত ১৬ ডিসেম্বর সিম নিবন্ধনে বায়োমেট্রিক পদ্ধতি চালু হওয়ায় আঙুলের ছাপ না দিয়ে এখন আর নতুন সিম কিনতে পারছে না কোনো নাগরিক। একই সঙ্গে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে পুরনো সিমের পুনর্নিবন্ধন চলছে, যা ৩০ এপ্রিলের মধ্যে শেষ করার কথা বলে আসছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সিম নিবন্ধন না হলে তা বন্ধ করে দেয়া হবে বলে গতকালও জানান মন্ত্রী। তবে সিম বন্ধের বিষয়ে বিটিআরসি ও সেলফোন অপারেটরদের পক্ষ থেকে কোনো প্রজ্ঞাপন ও বিবৃতি দেয়া হয়নি।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

আইন ও অধিকার এর অারো খবর