অ্যামনেস্টিকে ক্ষমা চাইতে বলেছে বাংলাদেশ
অ্যামনেস্টিকে ক্ষমা চাইতে বলেছে বাংলাদেশ
২০১৫-১১-১১ ০৬:৪৮:৪২
প্রিন্টঅ-অ+


যুদ্ধাপরাধীদের বিচারকে কটাক্ষ এবং মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে আপত্তিকর বিবৃতি দেওয়ার জন্য অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালকে ক্ষমা চাইতে বলেছে বাংলাদেশ।

লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনের মাধ্যমে বিবৃতি প্রত্যাহার এবং ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বাংলাদেশের চিঠি অ্যামনেস্টির সদর দপ্তরে পাঠানো হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

চিঠিতে বলা হয়, বাংলাদেশের স্বাধীনতার পক্ষের শক্তিকে নিয়ে অ্যামনেস্টির বক্তব্য তীব্র আপত্তিকর। এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের মানুষের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধীদের পক্ষে অ্যামনেস্টি অবস্থান নিয়েছে। বিষয়টি বাংলাদেশের মানুষকে ক্ষুব্ধ করেছে। এ বিবৃতির মধ্য দিয়ে অ্যামনেস্টি তার নিরপেক্ষ অবস্থান থেকে সরে গেছে এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে যারা মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিচারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে তাদের তালিকায় অ্যামনেস্টি অর্ন্তভুক্ত হয়েছে, এটা খুবই দুঃখজনক। এ অবস্থায়, অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের কাছে ওই আপত্তিকর বিবৃতি প্রত্যাহার এবং ক্ষমা চাওয়ার দাবি করছে বাংলাদেশের জনগণ ও সরকার।

একাত্তরে গণহত্যা, লুন্ঠন, ধর্ষণ, বুদ্ধিজীবী হত্যার মত অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী ও আলী আহসান মুজাহিদের সর্বোচ্চ শাস্তির রায় উচ্চ আদালতে বহাল থাকার পর অ্যামনেস্টি হঠাৎ করেই এ বিচার প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন তোলে এবং মহান মুক্তিযোদ্ধাদের সম্পর্কে অপমানজনক বক্তব্য দিয়ে একটি বিবৃতি প্রচার করে।

এর বিরুদ্ধে দেশে প্রতিবাদের ঝড় বয়ে যায়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওই বিবৃতির বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং যুদ্ধাপরাধীদের রক্ষার স্বার্থে বড় অঙ্কের টাকার বিনিময়ে অ্যামনেস্টি গর্হিত অপরাধ করেছে বলে মন্তব্য করেন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

আইন ও অধিকার এর অারো খবর