যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালে সাইবার হামলা তদন্তে এফবিআই
যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালে সাইবার হামলা তদন্তে এফবিআই
২০১৬-০৩-৩১ ০২:০১:১৩
প্রিন্টঅ-অ+


মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যারিল্যান্ড প্রদেশের মেডস্টার হেলথ-এর কম্পিউটার ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। মেডস্টার হেলথ-এর আওতায় সংস্থাটিতে রয়েছে ১০টি হাসপাতাল এবং ডজনখানেক ক্লিনিক। ভাইরাস আক্রমণের ঘটনায় রোগীর স্বাস্থ্য নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখেই তদন্তে নেমেছে দেশটির গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই।

২৮ মার্চ ম্যারিল্যান্ডের মেডস্টার হেলথ আইটি সিস্টেমে ভাইরাস দেখা দেয়। এই ভাইরাস প্রতিষ্ঠানের কিছু ব্যবহারকারীকে সিস্টেমে লগইন করতে দেয়নি বলে হাসপাতালের ফেইসবুক পেইজে জানানো হয় বলে এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করে সিএনএন।

আরও জানানো হয়, এই ভাইরাস থামাতে সঙ্গে সঙ্গেই উদ্যোগ নিয়েছে মেডস্টার হেলথ কর্তপক্ষ। হাসপাতালে বাকি জায়গায় ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে প্রতিষ্ঠানের সব সিস্টেম বন্ধ করে দেয় তারা। শনাক্ত না করা এই ভাইরাস হাসপাতালের কাগজপত্র এবং ব্যাকআপ সিস্টেমে হামলা করে।

হাসপাতাল কতৃপক্ষ এ বিষয়ে সাহায্য চাইলে তদন্ত শুরু করে এফবিআই। এফবিআই-এর মুখপাত্র ডেভিড ফিটজ্ বলেন, “এফবিআই ব্যাপারটি জানে এবং এর কারণ খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে।”

ভাইরাসটি র‌্যানসমওয়্যার ধরনের হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই টাইপের ভাইরাস ডিজিটাল ফাইল এনক্রিপ্ট করতে পারে। এটি সত্যি হলে ঝুঁকির মধ্যে পড়বে এই সংস্থার ৪৫ লাখ রোগী।

উল্লেখ্য, এ বছরের মার্চের মাঝমাঝিই মেথডিস্ট নামের মাঝারি আকারের একটি হাসপাতালে ভাইরাস হামলা চালায় হ্যাকাররা। ভাইরাসের মাধ্যমে হাসপাতালটিতে ৫ দিন অভ্যন্তরীণ জরুরী অবস্থা তৈরি করে হ্যাকারদল। আর ফেব্রুয়ারিতেই র‌্যানসমওয়্যার থেকে কম্পিউটার সিস্টেমকে মুক্ত করতে বিটকয়েনের মাধ্যমে ১৭ হাজার মার্কিন ডলার খরচ করেছে হলিউড প্রেসবাইটেরিয়ান মেডিকেল সেন্টার।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিদেশ এর অারো খবর