ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে শিশু অপহরণ পরিকল্পনা
ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে শিশু অপহরণ পরিকল্পনা
২০১৬-০৩-২৭ ০১:৪০:৫২
প্রিন্টঅ-অ+


শিশু অপহরণের পরিকল্পনা শুরু করে দুইজন কিশোরী। একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে নতুন মায়েদের বিনামূল্যে শিশুদের জামাকাপড় দেওয়ার প্রস্তাব করে তাঁরা। কিন্তু প্রথমে কেউই সন্দেহ করতে পারেনি যে তাদের এই মহৎকর্মের আড়ালে লুকিয়ে ছিলো শিশু অপহরণের পরিকল্পনা। কিন্তু মাত্র ১৭ বছরের একটি মেয়েকে সমাজকর্মী হিসেবে দেখে সন্দেহ হয় এক মায়ের আর তাতেই নষ্ট হয়ে যায় এই অপহরণের পরিকল্পনা।

দুই কিশোরী ফেইসবুকে সম্ভাব্য শিকারের ঠিকানা জানার চেষ্টা করতো। তাদের পরিকল্পনা ছিল শিশু চুরি করা এবং একজন মা স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য তার সন্তানকে এই ‘সমাজকর্মীর’ হাতে প্রায় তুলেই দিচ্ছিলেন।

ডার্বি যুব আদালতে ১৪ মার্চ তারা স্বীকার করে যে, ২০১৫ সালে ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে ২৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এস, ডব্লিউ এবং ইউ নামে দুইজন শিশুদের অপহরণের ষড়যন্ত্র করে।

তদন্তের স্বার্থে এবং অভিযুক্তরা অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় তাদের পরিচয় গোপন রাখা হয়। ডার্বির নরম্যানটনে বসবাসকারী একজন মায়ের ১৭ বছর বয়সী সমাজকর্মীকে উপস্থিত হতে দেখে সন্দেহ হওয়ায় তিনি পুলিশকে জানালে অপরাধীরা ধরা পরে।

হাডার্সফিল্ড এবং ওলভেরহ্যাম্পটনের আরও দুই শিশুকে তাদের অপহরণের পরিকল্পনা ছিল বলে পুলিশ জানতে পেরেছে। ডার্বিশায়ার পুলিশের তদন্ত কর্মকর্তা ডানকান গোউক বলেন, “অঘটনটি ঘটে গেলে এই ছোট শিশুর পরিণাম ভয়াবহ হত এবং তাদের পরিবার দুর্যোগের মধ্যে পড়ত।”

পুলিশ কর্মকর্তারা নিরলসভাবে কাজ করে গেছে, এবং অভিযোগের এক সপ্তাহের মধ্যে আসামীদের গ্রেপ্তার করা হহয়েছে। শুধু এই তিনটি শিশুই নয়, তাদের আরও অন্যান্য শিশুর উপরও লক্ষ্য ছিল বলে তিনি মনে করেন।

ষড়যন্ত্র প্রক্রিয়াটি ফেইসবুকের মাধ্যমে হতো, তারা ফেইসবুকে শিশুদের মায়েদের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য ভুয়া প্রোফাইল তৈরি করে। তাদের পরিকল্পনা ছিল প্রথমে নতুন মায়েদের বিশ্বাস অর্জন করা। কিন্তু কীভাবে তারা নতুন মায়েদের শনাক্ত করত এ ব্যাপারে তারা ১০০ ভাগ নিশ্চিত নয় বলে জানান।

সব মায়েরাই তাদের ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে বিনামূল্যে শিশুদের জামাকাপড় প্রদানের বার্তা সম্বলিত ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পেত। তারা মায়েদের ঠিকানা এবং যোগাযোগের বিস্তারিত পাওয়ার জন্য তারা মায়েদের এমন বার্তা পাঠাত।

আদালত ২০ মে এ মামলায় রায় দেবে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিচিত্রিতা এর অারো খবর