দীর্ঘ ২৫ বছর পর আজ ক্রিকেট তীর্থে বাংলাদেশ দল
দীর্ঘ ২৫ বছর পর আজ ক্রিকেট তীর্থে বাংলাদেশ দল
২০১৬-০৩-১৬ ০১:৫৩:৫৪
প্রিন্টঅ-অ+


ক্রিকেটের তীর্থপিঠ বলতেই আমাদের মাথায় আসে ইংল্যান্ডের লর্ডসের নাম, কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সের নাম। লর্ডসের দূরত্ব অনেক হলেও ইডেনের দূরত্ব খুব বেশি নয় বাংলাদেশ থেকে।

কিন্তু বিগত পঁচিশ বছর ধরে ক্রিকেটের এই অন্যতম তীর্থে খেলা হয়ে ওঠেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। এই মাঠে শেষ খেলেছিলো বাংলাদেশ ১৯৯০ সালে। সেবার প্রতিপক্ষ ছিলো শ্রীলঙ্কা। পরিনত শ্রীলঙ্কা দলের সাথে অপরিণত বাংলাদেশ দল পরাজয় বরণ করলেও সে ম্যাচে সেরা খেলোয়ার হয়েছিলো বাংলাদেশের আতাহার আলি খান। ৯৫ বলে অপরাজিত ৭৮ রান করে সেরা খেলোয়াড় হন তিনি।

যদিও এরপরে একবার ইডেনে খেলার সুযোগ এসেছিলো বাংলাদেশের। ইডেন গার্ডেন্সের ১৫০তম বর্ষ উদযাপন উপলক্ষে ২০১৪ এই মাঠে একটি প্রীতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট খেলতে বাংলাদেশ দলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলো ভারতীয় তথা বিশ্ব ক্রিকেটের কিংবদন্তী সৌরভ গাঙ্গুলি। বিসিবি সৌরভের আমন্ত্রণ গ্রহণ করলেও সেবার ইডেনে কোনো ম্যাচ খেলা হয়নি বাংলাদেশের। টাইগারদের ম্যাচ হয়েছিল কলকাতার যাদবপুরে। সেই ঘটনার জন্য কিছুটা হতাশা ছিল এবং আছে বিসিবির। এবার সেই হতাশা কাটিয়ে ওঠার সময়।

আজ ১৬ মার্চ বিখ্যাত ইডেনে খেলতে নামছে বাংলাদেশ। টি২০ বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব শেষে সুপার টেন নিশ্চিত করেছে টাইগাররা। সুপার টেনে গ্রুপ টুতে খেলবে বাংলাদেশ। ১৬ মার্চ ইডেন বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান। ২৬ মার্চ ইডেনের পরের ম্যাচে বাংলাদেশ খেলবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে।

টি২০ ম্যাচ খেলা নিশ্চিত হওয়ার আগে যখন ইডেনে বাংলাদেশ দলের একমাত্র টেস্ট ম্যাচের ভেন্যু নিশ্চিত হয়, তখন স্মৃতিকাতর আতাহার আলী বলেছিলেন, ‘একজন ক্রিকেটার হিসেবে প্রত্যেকেই চায় লডর্স, মেলবোর্ন এবং ইডেনে খেলতে। আমি বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক ম্যাচে ইডেনেই ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছিলাম। সেই দৃশ্য এখনো আমার সামনে ভাসে।’

ইডেনের দর্শক ধারণ ক্ষমতা ৬৬ হাজার। ১৬ মার্চের পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে ভরা গ্যালারির সমর্থন থাকবে বাংলাদেশের দিকেই। আর পরের ম্যাচ ২৬ মার্চ। বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে। এমন দিনে বিশ্বকাপের মতো আসরে একটি ম্যাচে মাঠে নামা বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জন্য এক বিশাল তাৎপর্যপূর্ণ।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

ক্রীড়া এর অারো খবর