ভারত-বাংলাদেশের আমাদানি-রফতানি শুরু
ভারত-বাংলাদেশের আমাদানি-রফতানি শুরু
২০১৬-০৩-১৬ ০১:৪৯:৫৯
প্রিন্টঅ-অ+


আগামী ২৩ মার্চ শুরু হচ্ছে ভারত-বাংলাদেশের আমাদানি-রফতানি। এদিন ভারত থেকে আমদানি হচ্ছে বিদ্যুৎ আর বাংলাদেশ আনুষ্ঠানিকভাবে ব্যান্ডউইথ রফতানি শুরু করবে ভারতে। দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের আওতায় এ আমদানি-রফতানি হচ্ছে। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বিকাশ স্বরূপ সাপ্তাহিক ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান।

সূত্রমতে, বাংলাদেশে ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আসবে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের পালাটানা বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে। আগরতলা থেকে ৬০ কিলোমিটার দক্ষিণে ৭২৬ মেগাওয়াটের এ বিদ্যুৎকেন্দ্র বাণিজ্যিকভাবে পরিচালনা করছে ভারতের সরকারি প্রতিষ্ঠান তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাস কর্পোরেশন (ওএনজিসি)।

এ বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের জন্য যাবতীয় ভারী যন্ত্রপাতি বাংলাদেশের ওপর দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। তখন এটি উৎপাদন শুরু করলে বাংলাদেশকে ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়। সেই প্রেক্ষিতে বাণিজ্যিক দরে এ বিদ্যুৎ দেওয়া হচ্ছে। বর্তমানে ত্রিপুরা রাজ্যে ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উদ্বৃত্ত থাকছে।

এদিকে গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে পরীক্ষামূলকভাবে ত্রিপুরা রাজ্যে ১০ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ দেওয়া শুরু হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর সম্প্রতি ভারত সঞ্চার নিগম লিমিটেড (বিএসএনএল) কর্তৃপক্ষ ইমেইলে জানায়, তারা ঠিকঠাক গতিতে ব্যান্ডউইথ পাচ্ছে। এর আগে ১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের রাষ্ট্রায়ত্ত কোম্পানি বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি (বিএসসিসিএল) ২০০ এমবিপিএস ব্যান্ডউইথ পাঠায়। পরীক্ষামূলকভাবে পরের কয়েকদিন এর পরিমাণ বাড়ানো হয়। ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে দেওয়া হয় চুক্তি অনুযায়ী এই ১০ জিবিপিএস। ২৩ মার্চ তা পাবে আনুষ্ঠানিকরূপ।

গত বছরের মে মাসে দু’দেশের রাষ্ট্রায়ত্ত দুই কোম্পানির মধ্যে এ বিষয়ে সমঝোতা স্মারক সই হয়। এরপর গত বছরের জুনে দু’দেশের প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে চুক্তি সই হয়।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর