ব্রেকিং নিউজ বিজয় দিবসে দি ইঞ্জিনিয়ার্স-এর সকল পাঠক-পাঠিকা, গ্রাহক-অনুগ্রাহক, বিজ্ঞাপনদাতা, দেশবাসী এবং মুক্তিযোদ্ধাদের জানাই আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।
‘তারা’ নয়, ওটি কৃত্রিম উপগ্রহ
‘তারা’ নয়, ওটি কৃত্রিম উপগ্রহ
২০১৬-০৩-০৪ ০০:৩০:৫৮
প্রিন্টঅ-অ+


রাশিয়ার একদল গবেষক মহাকাশে একটি কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠানোর উদ্যগ নিয়েছে। মায়াক বা লাইটহাউজ নামের ওই কৃত্রিম উপগ্রহটি প্রতিফলনে সক্ষম। প্রকল্পটির জন্য ইতিমধ্যে তহবিলও সংগ্রহ করে ফেলেছেন তারা।

এ প্রকল্পের জন্য তারা ১৭,৫০০ পাউন্ড সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়েছে। সংগৃহীত তহবিল কৃত্রিম উপগ্রহটির গবেষণা ও প্রটোটাইপ তৈরিতে ব্যবহার করা হবে। সবকিছু ঠিক থাকলে ২০১৬ সালের মাঝামাঝি নাগাদ সয়ুজ-২ রকেটের সঙ্গে কৃত্রিম উপগ্রহটি মহাকাশে পাঠানো হবে।

সেখানে এই পিরামিড আকৃতির সৌর প্রতিফলকটি যতটুকু সম্ভব আলোকরশ্মি ধারণ করবে এবং গবেষকরা দাবি করেছেন, চাঁদের পর এটিই হবে মহাকাশের সবচেয়ে উজ্জ্বল বস্তু যা রাতে পৃথিবী থেকে দেখা সম্ভব হবে। আর খালি চোখে মনে হবে ওটিই আকাশের উজ্জ্বলতম ‘তারা’।

ব্রিটিশ দৈনিক ইনডিপেনডেন্ট জানিয়েছে, প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য যারা তহবিল দিয়ে সহযোগিতা করেছে, তাদেরকেও নিরাশ করা হচ্ছে না। তহবিলে যারা ৯৭০ পাউন্ড অনুদান দিয়েছেন, তাদেরকে মায়াক-ব্র্যান্ডের টেলিস্কোপ দেওয়া হবে। আর যারা ২,৯০০ পাউন্ড অনুদান দিয়েছেন, তারা পাচ্ছেন আরও আকর্ষণীয় সুযোগ। ওই অনুদানদাতারা কাজাখস্তানে উপস্থিত হয়ে সরাসরি কৃত্রিম উপগ্রহটির লঞ্চ দেখার সুযোগ পাবেন।

এ ছাড়াও গবেষকরা তরুণ বয়সীদের বিজ্ঞান এবং মহাকাশ বিষয়ে আগ্রহী করে তুলতে ভিন্ন আরেকটি পদক্ষেপ নিয়েছেন। কৃত্রিম উপগ্রহটি কখন মহাকাশের কোথায় রয়েছে, অ্যাপের সাহায্যে তা বুঝার ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে। এতে করে মহাকাশে থাকলেও অ্যাপের মাধ্যমে তরুণরা জানতে পারবে ঠিক কোথায় অবস্থান করছে ওই কৃত্রিম উপগ্রহ।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর

top
ব্রেকিং নিউজ বিজয় দিবসে দি ইঞ্জিনিয়ার্স-এর সকল পাঠক-পাঠিকা, গ্রাহক-অনুগ্রাহক, বিজ্ঞাপনদাতা, দেশবাসী এবং মুক্তিযোদ্ধাদের জানাই আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।
facebook
Advertisement