আবারও জাপানে ডাইনোসরের জীবাশ্ম
আবারও জাপানে ডাইনোসরের জীবাশ্ম
২০১৬-০৩-০১ ০২:০৯:৫৭
প্রিন্টঅ-অ+


আবারও জাপানে পাওয়া গেল ডাইনোসরের জীবাশ্ম। ফুকুই অঞ্চলে পাওয়া নতুন এই জীবাশ্ম নিয়ে দেশটিতে পাওয়া এই প্রজাতির জীবাশ্ম সংখ্যা দাঁড়ালো সাত।

জীবাশ্ম বিশ্লেষকরা বলছেন, এটি থেরোপড দলের ছোট একটি ডাইনোসর ছিল। দ্বিপদ ডাইনোসরগুলোকে সাধারণত এই দলে ফেলা হয়।

ফুকুই প্রিফেকচারাল ডাইনোসর মিউজিয়াম-এর সূত্রমতে, প্রাচীন সব বৈশিষ্ট্যই পাওয়া গেছে এই জীবাশ্ম নমুনায়।

জাপান টাইম জানিয়েছে, এই ডাইনোসরের নাম দেওয়া হয়েছে ফুকুইভেনাটর প্যারাডক্সাস।

থেরোপডগুলো যখন পাখিতে বিবর্তিত হতে শুরু করলো, তখনও ফুকুইভেনাটর প্রজাতির অস্তিত্ব ছিল। “ফুকুইভেনাটর পাখিতে রূপান্তরিত হতে ব্যর্থ হয়", এমনটাই বলেছেন একজন বিশেষজ্ঞ। এই প্রজাতির ডাইনোসরগুলো লম্বায় আড়াই মিটার আর প্রায় ২৫ কেজির হত।

ভারতীয় সংবাদ সংস্থা ইন্দো-এশিয়ান নিউজ সার্ভিস (আইএএনএস) জানিয়েছে, ২০০৭ সালে অগাস্টে পাওয়া প্রায় ১২ কোটি বছর আগের একটি শিলাস্তরে জীবাশ্ম থেকে সংগৃহীত জীবাশ্ম নমুনা নিয়ে গবেষণার সময় এই আবিষ্কার করা হয়। এর শরীরের প্রায় ৭০ শতাংশ ভালো অবস্থায় ছিল।

পালক দিয়ে ঢাকা ফুকুইভেনাটরের ঘাড়ে দুটি কাঁটাওয়ালা কশেরুকা ছিল, যা অন্য কোনো থেরাপডে পাওয়া যায়নি। এ কারণে যেসব প্রজাতির প্রাণি পাখিতে বিবর্তিত হয়েছিল, একে সেগুলোর সঙ্গে অনেকটা সমতুল্য ধরা হয়। লম্বা গলা থাকার কারণে এটি সর্বভূক ছিল বলে বিশ্বাস করা হয়।


ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিদেশ এর অারো খবর