ভাসমান হাসপাতালে বসছে ভি-স্যাট
ভাসমান হাসপাতালে বসছে ভি-স্যাট
২০১৬-০৩-০১ ০১:৫২:৪৯
প্রিন্টঅ-অ+


এবার ভাসমান হাসপাতালে ‘মেরিটাইম ভি-স্যাট’ (ভেরি স্মল অ্যাপারেচার টার্মিনাল) চালু হতে যাচ্ছে। আর এটি চালু করার ঘোষণা দিয়েছে যৌথভাবে বেসরকারি সংস্থা ফ্রেন্ডশিপ এবং ল্যুক্সেমবার্গভিত্তিক কৃত্রিম উপগ্রহ অপারেটর সোসাইটি ইউরোপিয়ান ডি স্যাটেলাইট (এসইএস)।

রাজধানীর ডেইলি স্টার সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।

স্কয়ার ইনফরম্যাটিক্স লিমিটেডের কারিগরি সহয়তায় ভাসমান লাইফবয় ফ্রেন্ডশিপ হসপিটাল, এমিরেটস ফ্রেন্ডশিপ হসপিটাল ও রংধনু ফ্রেন্ডশিপ হসপিটালে মেরিটাইম ভি-স্যাট স্থাপন করা হবে।

ল্যুক্সেমবার্গ সরকারের সহযোগিতায় ও সোসাইটি ইউরোপিয়ান ডি স্যাটেলাইট (এসইএস) প্রবর্তিত কৃত্রিম উপগ্রহভিত্তিক ই-স্বাস্থ্যসেবা প্ল্যাটফর্ম স্যাটমেড প্রকল্প উন্নয়নে ২০১৪ সালের মে মাসে ফ্রেন্ডশিপ হসপিটাল এসইএস -এর সঙ্গে যুক্ত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ফ্রেন্ডশিপের প্রতিষ্ঠাতা ও নিবার্হী পরিচালক রুনা খান, এসইএস –এর গভর্নমেন্ট সলিউশন ডিপ্লয়মেন্ট -এর জ্যেষ্ঠ বিশ্লেষক মারিয়া মাতিও ইবোরা, ফ্রেন্ডশিপ ল্যুক্সেমবার্গ -এর চেয়্যারমান মার্ক ইনভিলজার এবং ফ্রেন্ডশিপের এমআইএস -এর টিম লিডার সুব্রত কুমার মণ্ডল।

রুনা খান বলেন, স্যাটমেড প্রকল্প বাস্তবায়নে সরকার, বেসরকারি খাত ও এসজিওএর মাঝে প্রকৃত অংশীদারিত্বের একটি অনন্য উদাহরণ। স্বাস্থ্য সেবা ‍দিতে ভাসমান হাসপাতালের অভিনব ধারণা নিয়ে যাত্রা শুরু করে ফ্রেন্ডশিপ। বর্তমানে প্রতিমাসে ফ্রেন্ডশিপ ৫ লাখ মানুষকে স্বাস্থ্য সেবা দান ছাড়াও শিক্ষা, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও অবকাঠামো উন্নয়ন, টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়ন, সুশাসন এবং সংস্কৃতি সংরক্ষণে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, পারস্পরিক আস্থা ও সহযোগিতাপূর্ণ অভিনব পদক্ষেপই নিশ্চিত করতে পারে সুবিধাভোগীদের আরও কার্যকরভাবে সেবা পৌঁছে দেওয়ার বিষয়টি।

মারিয়া মাতিও ইবোরা বলেন, স্যাটমেড একটি কৃত্রিম উপগ্রহভিত্তিক যোগাযোগ সমাধান যার লক্ষ্য উদীয়মান ও উন্নয়নশীল দেশগুলোর জনস্বাস্থ্য উন্নয়ন করা। বিশেষ করে প্রত্যন্ত, দুর্গম ও বিচ্ছিন্ন অঞ্চলের মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতেই মেরিটাইম ভি-স্যাট স্থাপন হচ্ছে। স্যাটমেড প্ল্যাটফর্মের সরঞ্জাম ও সেবা বাস্তবায়নের পর ভাসমান হাসপাতাল জাহাজগুলোতে ই-কেয়ার, ই-লার্নিং, ই-পর্যবেক্ষণ, ই-স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা এবং ডিজিটাল ইমেজিং ক্ষেত্রে সহজে কাজ করতে সক্ষম হবে- বলেন মারিয়া মাতিও ইবোরা। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের প্রত্যন্ত চর এলাকায় বসবাসকারি প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কাছে স্বাস্থ্যসেবা আরও সহজে পৌঁছে দিতে ই-হেলথ ফ্রেন্ডশিপকে আরও দক্ষ ও কার্যকর করবে। আগামী ১-৫ মার্চ ভিস্যাট স্থাপনকালে ২ মার্চ স্যাটমেড -এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হবে।


ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বাস্থ্য এর অারো খবর