নাসায় আইডিয়া দিলে মিলতে পারে চাকরি
নাসায় আইডিয়া দিলে মিলতে পারে চাকরি
২০১৬-০২-২৩ ১০:৪৪:৫১
প্রিন্টঅ-অ+


দ্বিতীয়বারের মতো বাংলাদেশে শুরু হতে যাচ্ছে নাসার স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ। ছোট্ট একটি আইডিয়া বদলে দিতে পারে পুরো বিশ্বকে। সেই আইডিয়া বা ধারণাগুলো খুঁজছে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে চাকরীও মিলতে পারে ওই সংস্থায়।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছে বেসিস। সোমবার থেকে শুরু হয়েছে নিবন্ধন-প্রক্রিয়া। বেসিসের স্টুডেন্টস ফোরামের ওয়েবসাইট থেকে নিবন্ধন করা যাবে।

বাংলাদেশে এই প্রতিযোগিতার আয়োজক হিসেবে রয়েছে বেসিস। বেসিস স্টুডেন্টস ফোরাম এই প্রতিযোগিতা নিয়ে ৬৪টি জেলার ১০০ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সেমিনার আয়োজন করবে।

দেশে দ্বিতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা আয়োজিত বিশ্বের সর্ববৃহৎ হ্যাকাথন প্রতিযোগিতা ‘ইন্টারন্যাশনাল স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৬ ’। বিশ্বের প্রায় ১৫০টি শহরের মতো বাংলাদেশের ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটে বড় পরিসরে আয়োজিত এই প্রতিযোগিতা আগামী ২২ থেকে ২৪ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে। যে কেউ এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবে। প্রতিযোগিতার আঞ্চলিক পর্যায়ের বিজয়ীরা চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবেন।

বেসিস সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৬ নামের আয়োজন প্রত্যক্ষভাবে দেখতে ইন্টারন্যাশনাল স্পেস অ্যাপস প্রতিযোগিতার কর্মকর্তারা বাংলাদেশে আসবেন।

বেসিসের সভাপতি শামীম আহসান বলেন, ‘দ্বিতীয়বারের মতো এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পেরে আমরা আনন্দিত। এর মাধ্যমে বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি সমস্যার সমাধানে উল্লেখযোগ্য ধারণা উঠে আসবে। নাসার মতো বড় প্রতিষ্ঠানে বাংলাদেশি তরুণদের চাকরির সম্ভাবনা বাড়বে। এ ছাড়া মহাকাশে ব্যবহৃত প্রযুক্তি উদ্ভাবনে এগিয়ে আসবেন দেশের তরুণেরা।’


স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের আহ্বায়ক আরিফুল হাসান বলেন, দেশের তিনটি বিভাগে বড় বুটক্যাম্প করা হবে। প্রতিটি বুটক্যাম্প থেকে দুটি করে মোট ছয়টি দল নাসার মূল প্রতিযোগিতায় অংশ নেবে। প্রতিযোগিতায় নির্বাচিত সব দল বেসিস থেকে সনদ পাবে। মূল প্রতিযোগীরা আন্তর্জাতিক স্পেস ক্যাম্পে যোগ দেবেন জুলাই মাসে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বেসিসের সভাপতি শামীম আহসান, নাসা ক্যাম্প অ্যাম্বাসেডর আফরোজ আল মামুন, বেসিসের পরিচালক আরিফুল হক, পৃষ্ঠপোষক পিবাজার, বাগডুম ডটকম, ইনডিপেনডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয় ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিরা।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বেসিসের কর্মকর্তারা বলেন, গত বছর চারটি দল নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। এবারে যাবে ছয়টি দল। নিবন্ধন ও বাছাই-প্রক্রিয়ার পর বেসিস ও বিভিন্ন বিশেষজ্ঞদের সহায়তায় তাঁদের সাহায্য করা হবে। চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় টিকতে পারলে নাসার চাকরিসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা পাবেন উদ্যোক্তারা।

নাসার প্রতিযোগিতায় জয়ী হতে টিম সমন্বয়, যোগাযোগে; বিশেষ করে ভাষার দক্ষতা ও বাজেট সমন্বয়ের বিষয়টিতে অধিক গুরুত্ব দিতে হবে বলে জানান নাসা ক্যাম্প অ্যাম্বাসেডর আফরোজ আল মামুন। বিমান চালনবিদ্যা, স্পেস স্টেশন, সোলার সিস্টেম, তথ্যপ্রযুক্তি, পৃথিবী ও মঙ্গলগ্রহে যাওয়ার বিষয়ে বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের ধারণা নিয়ে প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে হবে।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর