সিটি ব্যাংকের তিন কর্মকর্তাসহ বিদেশি গ্রেপ্তার
সিটি ব্যাংকের তিন কর্মকর্তাসহ বিদেশি গ্রেপ্তার
২০১৬-০২-২২ ১৩:৫৩:২০
প্রিন্টঅ-অ+


এটিএম বুথে জালিয়াতির ঘটনায় সিসি ক্যামেরায় পাওয়া ছবি দেখে বিদেশি এক নাগরিক সহ তিন বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গোয়েন্দা পুলিশের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গ্রেপ্তার বিদেশি পিটার স্কেজেফান মাজুরেক নামের পোল্যান্ডের একটি পাসপোর্ট নিয়ে বাংলাদেশে ঢুকেছিলেন। তার জন্ম ইউক্রেইনে। তার কাছে জার্মান নাগরিকত্বের একটি পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে।

ঢাকার বনানীতে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের (ইউসিবি) একটি বুথে স্কিমিং ডিভাইস বসানোর সময় ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরায় এক বিদেশির ছবি পাওয়া গিয়েছিল বলে ব্যাংকটির করা মামলায় বলা হয়েছিল।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ইউসিবি কর্তৃপক্ষ বনানী থানায় মামলা করে এজাহারের সঙ্গে সিসিটিভির ভিডিও জমা দেয়।

এরপর ভিডিওতে দেখা ব্যক্তির মতো চেহারার পাঁচ বিদেশির উপর নজর রাখছিল পুলিশ। ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেছিলেন, আসল অপরাধীর বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার পরই গ্রেপ্তার করা হবে।

এরপর সোমবার সকালে এক বিদেশিসহ বাংলাদেশি কয়েকজনকেও গ্রেপ্তারের খবর নিশ্চিত করেন ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার মারুফ হোসেন সরদার।

রোববার সন্ধ্যায় ঢাকার গুলশান এলাকা থেকে গ্রেপ্তারের পর সোমবার দুপুরে চারজনকে নিয়ে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে আসেন ডিবি কর্মকর্তারা।

তিন বাংলাদেশি মোকসেদ আলী মাকসুদ, রেজাউল করিম শাহীন, রেফাত আহমেদ রনি সিটি ব্যাংকের আইটি শাখার কর্মকর্তা বলে ডিএমপির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

পুলিশের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গ্রেপ্তার পিটার একটি আন্তর্জাতিক জালিয়াত চক্রের সদস্য। বুলগেরিয়া এবং ইউক্রেইনের এক নাগরিককে নিয়ে এই জালিয়াতির পরিকল্পনা সাজিয়েছিলেন তিনি।

চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিন হেফাজতের আবেদন জানিয়ে আদালতে পাঠানো হবে বলে গোয়েন্দা কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর