ভিডিও গেইমই যখন ‘ম্যাচ মেকার’
ভিডিও গেইমই যখন ‘ম্যাচ মেকার’
২০১৬-০২-১৮ ০০:১০:৫৯
প্রিন্টঅ-অ+


মাল্টিপ্লেয়ার অনলাইন রোল-প্লেইং গেইমগুলো গেইমারদের মধ্যে ‘ম্যাচমেকার’ হিসেবে কাজ করছে। অনেকেই সঙ্গী বা সঙ্গিনীর খোঁজে অনলাইন গেইমগুলোর উপর নির্ভর করছেন।

ব্রিটিশ দৈনিক ইনডিপেনডেন্ট জানিয়েছে অনলাইন গেইমের ভার্চুয়াল জগতে ঘুরে-বেড়ানোর সময় বিশ্বের অপর প্রান্তে থাকা আরেক গেইমারের সঙ্গে জোট বেঁধে মিশনে নামা গেইমারদের জন্য নতুন কিছ নয়। গেইমগুলোর মাধ্যমে এভাবেই পরিচিত হওয়া সম্ভব নতুন অনেকের সঙ্গেই। আর নতুন পরিচয় মানুষেদের মধ্যে থেকেই গেইমাররা তাদের ‘জীবনসঙ্গী’ খুঁজে নিচ্ছেন।

‘অনলাইন গেইম’ খেলতে গিয়ে প্রেম, শুনতে খুব একটা রোমন্টিক মনে না হলেও এর বাস্তব প্রমাণ লুইস ও লিসা জুটি। দুজনেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক, পরিচয় ২০০৯ সালে ওয়ার্ল্ড অফ ওয়ারক্রাফট খেলতে গিয়ে। “আমার মনে হয়, যেহেতু আমাদের পরিচয় অনলাইনে হয়েছিল তাই আমাদের একে অপরের ব্যক্তিত্বের উপরই বেশি নির্ভর করতে হয়েছে। একে অন্যের সঙ্গে আমাদের আচরণটাও আসল ছিল। অনলাইনে আমরা নিজেদের মতোই থাকতে পারতাম।”--বলেন লিসা।

পরিচয়ের কিছুদিন পরেই দুজনের দেখা, ২০১৪ সালে বিয়ের কাজটাও সেরে নেন এই জুটি। আর অনলাইন গেইমিং জগতের জন্য এই গল্পটা ব্যতিক্রমধর্মীও নয়।

এ প্রসঙ্গে ওয়ার্ল্ড অফ ওয়ারক্রাফট পরিচালক টম চিলটন বলেন, “গেইমারদের জন্য এক অপরকে সাহায্য করে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা ব্যাপার। এমওআরপিজি গেইমের জাদুর বড় একটা অংশ এটা।”

অবশ্য ডেভেলপারদের কেউ কেউ এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে ব্যবসাও করছেন। ফাইনাল ফ্যান্টাসি ১৪-তে গেইমাররা একে অন্যের প্রতি ভালেঅবাসার জানান দিতে পারেন ‘ইটার্নাল বন্ডিং’-এর মাধ্যমে। গেইমের এই ফিচারটিকে তুলনা করা যেতে পারে বাস্তব জগতের বিয়ের সঙ্গে। তবে এই ফিচারটি ব্যবহারের জন্য গাঁটের পয়সা খরচ করতে হয় গেইমারদের।

তবে গেইমগুলোর এই অভিজ্ঞতা বাস্তব জগতের সম্পর্কগুলোর উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞদের অনেকেই। “খুব বেশি সময় গেইমগুলোতে কাটালে তা বাস্তব জগতের জুটিরগুলোর সম্পর্কে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে” —সতর্ক করে দিয়েছেন ব্রডওয়ে লজ।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর অারো খবর