প্রতি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম হবে: প্রধানমন্ত্রী
প্রতি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম হবে: প্রধানমন্ত্রী
২০১৬-০২-১৭ ২৩:৫৫:৫১
প্রিন্টঅ-অ+


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,দেশের স্কুল পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের খেলাধুলার সুযোগ সৃষ্টির জন্য দেশের প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মিনি স্টেডিয়াম তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। দেশের প্রতিটি স্কুলের ছেলে-মেয়েরা যাতে লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলার সযোগ পায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে শিক্ষকদের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট এবং বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০১৫ এর ফাইনাল ম্যাচের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির সংক্ষিপ্ত ভাষণে মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা প্রতি উপজেলায় অন্তত একটি করে মিনি স্টেডিয়াম করে দেব যেখানে স্কুল-কলেজের ছেলে-মেয়েরাই বেশি করে খেলাধূলার সুযোগ পাবে। লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলা এবং সংস্কৃতি চর্চায় ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে ব্যস্ত রাখা গেলে তারা আর বিপথে যাবে না।’
এর আগে দুপুরে অনুষ্ঠিত হয় ছেলেদের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা। এতে কক্সবাজার জেলার পেকুয়ার রাজখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় দিনাজপুরের বীরগঞ্জের মরিচা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে পরাজিত করে শিরোপা জয় করে।

তিনি টুর্নামেন্ট সম্পর্কে বলেন,‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টে ৬৩ হাজার ৫০৯টি দল এবং বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ ফুটবল-২০১৫ তে ৬৩ হাজার ৪৩১ দল অংশ নিয়েছে। বিশ্বের আর কোথাও এত বড় আয়োজনে ফুটবল টুর্নামেন্ট হয় কি না তা আমার জানা নেই।’

চ্যাম্পিয়ন দলকে ট্রফি ছাড়াও এক লাখ টাকার প্রাইজমানি এবং প্রতি খেলোয়াড়কে ১০ হাজার টাকার চেক ও মেডেল, রানার্স আপ দলকে ৭৫ হাজার টাকার প্রাইজমানি ও ট্রফি এবং তৃতীয় স্থান অধিকারী দলকে ৫০ হাজার টাকার প্রাইজমানি দেওয়া হয়।

সারাদেশে লক্ষাধিক স্কুলের ১০ লাখের বেশি শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে প্রাথমিক স্কুল পর্যায়ের এই দুটি টুর্নামেন্ট হয়। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টে ৬৩ হাজার ৫০৯টি দল এবং বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ ফুটবল-২০১৫ তে ৬৩ হাজার ৪৩১ দল অংশ নিয়েছে। বিশ্বের আর কোথাও এত বড় আয়োজনে ফুটবল টুর্নামেন্ট হয় কি না তা আমার জানা নেই।’চ্যাম্পিয়ন দলকে ট্রফি ছাড়াও এক লাখ টাকার প্রাইজমানি এবং প্রতি খেলোয়াড়কে ১০ হাজার টাকার চেক ও মেডেল, রানার্স আপ দলকে ৭৫ হাজার টাকার প্রাইজমানি ও ট্রফি এবং তৃতীয় স্থান অধিকারী দলকে ৫০ হাজার টাকার প্রাইজমানি দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়, ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাহাউদ্দিনসহ প্রধানমন্ত্রীর উপদেস্টা, মন্ত্রী পরিষদ সদস্য, সংসদ সদস্যবৃন্দ, সচিব, বিভিন্ন দপ্তর ও অধিদপ্তরের প্রধানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সূত্র: বাসস।

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

ক্রীড়া এর অারো খবর