কাজ নেই প্রশাসনের ২০২ কর্মকর্তার
কাজ নেই প্রশাসনের ২০২ কর্মকর্তার
২০১৫-১১-০৭ ১২:৪৬:১৭
প্রিন্টঅ-অ+


চাকরি আছে, বেতন-ভাতাও আছে। শুধু চেয়ার নেই। কর্মদিবসে সচিবালয় বা নির্দিষ্ট মন্ত্রণালয়/বিভাগে গেলেও চলে, আবার না গেলেও কোনো সমস্যা নেই। জনপ্রশাসনে এমন কর্মকর্তার সংখ্যা ২০২ জন।

তবে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, সর্বোচ্চ পর্যায়ে নামিয়ে আনা হয়েছে ওএসডির সংখ্যা। আগামী দুই মাসের মধ্যে এ সংখ্যা আরো কমে যাবে। এটি আমাদের অর্জন।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বর্তমান প্রশাসনে সচিব পদমর্যাদার দুই কর্মকর্তা চুক্তিতে নিয়োগসহ মোট কর্মকর্তা রয়েছেন ৫ হাজার ৫১৬ জন। এসব কর্মকর্তার মধ্যে ২০২ জন ওএসডি এবং সংযুক্ত ১২৭ জনসহ লিয়েন ও প্রশিক্ষণ মিলিয়ে রয়েছেন আরো ৩২৫ জন।

বর্তমান প্রশাসনে সিনিয়র সচিবসহ মোট সচিব ৬৯ জন। এর মধ্যে ২ জন চুক্তিতে, আর ভারপ্রাপ্ত সচিব রয়েছেন ৫ জন। সচিব ছাড়াও অন্যান্য পদের মধ্যে অতিরিক্ত সচিব ৪১৮, যুগ্ম-সচিব ৯০৮, উপসচিব ১ হাজার ৩০৪ জন, সিনিয়র সহকারী সচিব ১ হাজার ৩৯৮ জন এবং সহকারী সচিব ১ হাজার ৪১৮ জন।

এসব কর্মকর্তার মধ্যে সচিব থেকে নিচের দিকে ক্যাডার সার্ভিসের প্রবেশন পদ সহকারী সচিব পর্যন্ত জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) রয়েছেন ২০২ জন। এছাড়া প্রশাসনে সংযুক্ত, ন্যস্ত, লিয়েন ও ট্রেনিংসহ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিশেষ কর্মকর্তা (ওএসডি) হিসেবে রয়েছেন আরো ৩২৫ জন। সরাসরি ওএসডিসহ সব মিলিয়ে এই সংখ্যা ৫২৭ জন।

সরাসরি ওএসডি কর্মকর্তাদের মধ্যে সচিব শাহজাহান আলী মোল্লা এবং সচিব পরীক্ষিত দত্ত চৌধুরী রয়েছেন। এছাড়া ২১ জন অতিরিক্ত সচিব, ৮৬ জন যুগ্ম-সচিব, ৪৩ জন উপসচিব, ৩৭ জন সিনিয়র সহকারী সচিব এবং ২৩ জন সহকারী সচিব রয়েছেন। এছাড়া বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত রয়েছেন ১২৭ জন।

সরাসরি ওএসডি কর্মকর্তাদের বসার জায়গা না থাকায় তারা সচিবালয় কেন্দ্রীয় লাইব্রেবির অডিটোরিয়ামে বসেন। আর সেখানেই দিনের কোনো একটি সময় খাতায় সই করে ফিরে যান বাসায় অথবা নিজের কোনো কাজে। ওএসডি এসব কর্মকর্তাদের বক্তব্য- কাজ নেই, তাই লাইব্রেরিতে বসে পত্রিকা পড়ে সময় কাটাই। সই করে বাড়ি যাই।

ওএসডি এসব কর্মকর্তার হাজিরা খাতায় সই করতে হয় লাইব্রেরির অডিটরিয়ামে। সেখানে হাজিরা খাতা রাখা আছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এজন যুগ্ম-সচিব বলেন, দীর্ঘদিন ওএসডি রয়েছি। পদায়নের জন্য দীর্ঘ অপেক্ষা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই। অনেকের অভিযোগ, দলীয় কারণে দীর্ঘদিন ওএসডি থাকতে হচ্ছে।

এদিকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিভিন্ন সময় দলীয় কার্যক্রমে সম্পৃক্ততার অভিযোগ রয়েছে অনেক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। যারা রুলস অব বিজনেস মানতে চান না।

তবে বর্তমানে সরকার সমর্থিত অনেক কর্মকর্তাই রয়েছেন, যারা প্রশাসনের রোষানলে পড়ে দীর্ঘদিন ধরে ওএসডি।
(এস এম আববাস)

ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট অাইনে পু্র্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবেনা ।

মন্তব্য

মন্তব্যে প্রকাশিত মত মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে ইঞ্জিনিয়রবিডি ডটকম-এর কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো দায় নেবে না।

স্বদেশ এর অারো খবর